হাওড়া পুরভোট কবে হবে, আসন পুনর্বিন্যাসের তৎপরতায় কী আভাস নির্বাচন কমিশনের

0 0
Read Time:2 Minute, 59 Second

নিউজ ডেস্ক ::নির্বাচন কমিশন হাওড়া পুরসভা ভোট করতে আগ্রহী।

আসন পুনর্বিন্যাসের পরই হতে পারে হাওড়া পুরসভার ভোট। একইসঙ্গে বালি পুরসভার ভোটও হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে কমিশন। সম্প্রতি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, বর্তমানে যে ৫০টি ওয়ার্ড রয়েছে, সেগুলি ভেঙে ছোট করতে হবে। ৫০ থেকে বাড়িয়ে হাওড়া পুরসভার ওয়ার্ড সংখ্যা করা হবে ৬৬।
যে সব ওয়ার্ড উন্নয়নের মাপকাঠিতে পিছিয়ে তাদের আগে বিন্যাস করা হবে।

নির্বাচন কমিশন চাইছে এই আসন বিন্যাস প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে করতে আইনি জট কাটিয়ে উঠতে। তাহলে আসন বিন্যাস হওয়ার পরই ভোট প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হতে পারে। নির্বাচন কমিশন কোমর বেঁধে আসরে নেমে পড়েছে। মূলত হাওড়ার যে সব ওয়ার্ড উন্নয়নের মাপকাঠিতে পিছিয়ে সেগুলিকে ভেঙে ছোট করা হবে। যাতে সরকারি সুযোগ-সুবিধার সমবণ্টন করা যায়।

কমিশন আরও জানিয়ছে, এক্ষেত্রে প্রাধান্য পাবে জনসংখ্যার বিষয়টি। শহরের কোন ওয়ার্ডে জনঘনত্ব কত, তার উপর ভিত্তি করে ওয়ার্ড ভাঙা হতে পারে। যেখানে জনসংখ্যা অনেক বেশি, সেই ওয়ার্ডকে 
আগে ভাঙা হবে

মোট চারটি বিধানসভা এলাকা নিয়ে গঠিত হাওড়া পুরনিগম। সেই চারটি বিধানসভা এলাকা হল হাওড়া উত্তর, মধ্য, দক্ষিণ ও শিবপুর বিধানসভার অন্তর্গত মোট ৫০টি ওয়ার্ড রয়েছে। সেই ৫০টি ওয়ার্ড ভেঙে ৬৬টি করা হবে। ৪৪ থেকে ৫০ নম্বর ওয়ার্ডগুলিতে আগে ভাঙা হবে বলে জানা গিয়েছে কমিশন সূত্রে। কারণ এই এলাকার জনঘনত্ব সবথেকে বেশি।

শিবপুর বিধানসভা এলাকায় বেশি আসন পুনর্বিন্যাসের প্রভাব পড়তে চলেছে। বর্তমানে ১০টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এই বিধানসভা। ওই বিধানসভার অন্তর্গত ওয়ার্ডগুলিকে ভেঙে দ্বিগুণ করা হতে পারে। এই কাজ পুজোর মধ্যেই সম্পন্ন হয়ে যাবে। তারপর পুজোর ছুটি মিটলেই পুরভোটের বাদ্যি বাজিয়ে দেওয়া হবে। এই মর্মে হাওড়া প্রশাসনের কাছে একটি নির্দেশিকা এসেছে। হাওড়া পুরসভার ওয়ার্ডের সীমানা পুনর্বিন্যাসের রিপোর্ট শীঘ্রই  জমা পড়বে।তারপরেই পূর্ণ উদ্যোগে কাজ শুরু হবে।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!